বিজ্ঞানীদের সংক্ষিপ্ত জীবনকথাঃ জগদীশ চন্দ্র বোস


জগদীশ চন্দ্র বোস ১৮৫৮ সালের ৩০ শে নভেম্বর বাংলাদেশের মুন্সিগঞ্জ জেলার রাড়িখাল গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। কলকাতার হেয়ার স্কুলে পড়া শেষ করে সেন্ট জাভিয়ার্স কলেজ থেকে বিএ ও এমএ পাশ করেন। এরপর তিনি লন্ডন মেডিক্যাল কলেজে প্রাণীবিদ্যা, উদ্ভিদবিদ্যা ও এনাটমী নিয়ে পড়াশুনা করেন।
১৮৮১ সালে ন্যাচারাল সায়েন্স উচ্চ সম্মান পাওয়ায় লন্ডন বিশ্ববিদ্যালয় বিজ্ঞানীকে ডি. এস. সি. উপাধি দেয়। ১৯০৭ সালে ইংরেজ সরকার বোসকে নাইট উপাধি দেয়। ১৯৮৫ সালে কলকাতার প্রেসিডেন্সি কলেজে পদার্থবিজ্ঞানে অধ্যাপনার মাধ্যমে বিজ্ঞান গবেষণায় জড়িয়ে পড়েন। বিদ্যুৎ তরঙ্গ নিয়ে বোসের করা গবেষণাটি "এশিয়াটিক সোসাইটি অব বেঙ্গল " জার্নালে প্রকাশিত হলে জগদীশের খ্যাতি দেশে-বিদেশে ছড়িয়ে পড়ে।


জগদীশ চন্দ্র বোসের উল্লেখযোগ্য আবিষ্কার সমূহঃ 
  • ১৮৯৬ সালে বিদ্যুৎ তরঙ্গ বিষয়ক যন্ত্র আবিষ্কার করেন।
  • ক্রিষ্টাল বিসিভার ও গ্যালেনা রিসিভার।
  • উদ্ভিদের প্রাণ।
  • বেতার যন্ত্রের মাধ্যমে বার্তা প্রেরণ। ( তিনি তার এই আবিষ্কারের স্বীকৃতি পান নি কারণ তার আগেই আরেক বিজ্ঞানী জি মার্কনী এই পদ্ধতিতে বার্তা প্রেরণ করতে সক্ষম হন এবং জার্নালে ঘোষণা করে ফেলেন)
জগদীশের রচিত বইসমূহঃ
তিনি তার জীবদ্দসায় ১৫ টি বই রচনা করেন । এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য  হলো-
  • জীবিত ও জড়ের স্পন্দন।
  • রেজাল্ট রেকর্ডার।
  • ক্রেম্পোগ্রাফ।
  • ইলেক্ট্রনিক গ্লোভ।
তার রচিত কিছু বই বিদেশি ভাষায় অনূদিত হয়েছে।
জগদীস চন্দ্র বোস সম্পর্কে জগতবিখ্যাত বিজ্ঞানী আইন্সটাইন বলেন "জগদীস চন্দ্র বোস যে সকল অমূল্য তথ্য পৃথিবীকে উপহার দিয়েছে তার যেকোন একটির জন্য তার নামে বিজয়স্তম্ভ স্থাপন করা উচিত" বুঝতেই পারছেন কোন মানদন্ড দিয়েই তাকে মাপা যাবে না।
এই মহান বিজ্ঞানী ১৯৩৭ সালের ২৩শে নভেম্বর পরপারে যাত্রা করেন।

বিজ্ঞানীদের সংক্ষিপ্ত জীবনকথাঃ জগদীশ চন্দ্র বোস বিজ্ঞানীদের সংক্ষিপ্ত জীবনকথাঃ জগদীশ চন্দ্র বোস Reviewed by Siam Ahmed on ১২:২২ PM Rating: 5

কোন মন্তব্য নেই